Breaking News

ভেষজ চা পানের উপকারিতা জানেন? স্বাস্থ্য সুরক্ষায় ৬ প্রকারের ভেষজ চা

চা আমরা সবাই কমবেশি পান করতে পছন্দ করি। বাজারে প্রচলিত চা ছাড়াও বহু ধরনের চা বানানো যায়। সম্প্রতিক গ্রিন টি বা সবুজ বিষয়ে সচেতনতা বাড়লেও ভেষজ চা সম্পর্কে অনেকেই অন্ধকারে রয়েছেন। শরীরের প্রয়োজন অনুযায়ী নানা প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করে চায়ের স্বাদ যেমন বাড়ানো যায় তেমন উপকারও পাওয়া যায়। এ নিবন্ধে থাকছে তেমনি কিছু ভেষজ চা ।এক নজরে দেখে নিন সেসব ভেষজ চা:

১। দারুচিনি চা:
প্রধানত মসলা হিসেবে ব্যবহৃত দারুচিনি নামের ভেষজটির উপকার সম্বন্ধে অনেকেরই জানা নেই। এটি অত্যন্ত উচ্চমাত্রার অ্যান্টি-অক্সিডেন্টসমৃদ্ধ একটি উপাদান। দারুচিনি চা দেহের কোলস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে। ফলে হৃদরোগের মতো মারাত্মক রোগও দূরে রাখা সম্ভব এ চা পান করে। তাই সুস্বাস্থ্য রক্ষায় নিয়মিত দারুচিনি চা পান করার চেষ্ট করুন। তাহলে শরীর অনেক ভাল থাকবে।

২। জিরা চা:
জিরা ঘুমের সমস্যা দূর করতে সহায়ক। এছাড়া এটি শরীর শীতল করতেও ভূমিকা রাখে। জিরা বিভিন্ন খাবার থেকে দেহের জন্য প্রয়োজনীয় আয়রন গ্রহণে সহায়তা করে। তাই চায়ে জিরার গুড়া প্রয়োগে বহু উপকার পাওয়া সম্ভব। এছাড়াও জিরা চা আপনার শরীরের অতিরিক্ত মেদ ঝরাতে দারুন কার্যকর।

৩। এলাচ চা:
এলাচ চায়ের সুগন্ধি যে কারো মন কেড়ে নেবে। এলাচ চা হতে পারে আপনার দিন শুরু করার সবচেয়ে ভালো পানীয়। এটি শুধু হজমশক্তিই বাড়ায় না আরও কিছু গুণ রয়েছে এলাচ চায়ের। এটি মাথাব্যথা কমায়, পেটের সমস্যা দূর করে এবং দেহ ঠাণ্ডা রাখতে সহায়তা করে। এছাড়া এলাচের উপাদান দেহ থেকে দূষিত পদার্থ দূর কর থাকে।

৪। জাফরান চা:
মূল্যবান এ মসলাটিতে রয়েছে বহু ধরনের গুণ। অনেকেই জাফরান বিভিন্ন খাবার প্রস্তুতে ব্যবহার করলেও চায়ে ব্যবহারে অভ্যস্ত নন। তবে ১ কাপ চায়ে যদি সামান্য জাফরান ব্যবহার করা হয় তাহলে তা শুধু স্বাদ কিংবা সৌন্দর্যই বাড়াবে না কিছু স্বাস্থ্যগত সুবিধাও পাওয়া যাবে। জাফরানের রয়েছে ক্যান্সার প্রতিরোধী উপাদান এবং শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। এছাড়া এটি হৃদরোগ প্রতিরোধ করে ও দৃষ্টিশক্তি ভালো রাখতে সহায়তা করে । তাই নিয়মিত জাফরান চা পানের অভ্যাস গড়ে তুলুন।

৫। ক্যামেলিয়া চা:
১ কাপ ক্যামোমিল চা মানসিক চাপ কমাতে সহায়তা করে। রাতের খাবারের পর এক কাপ ক্যামোমিল চা উদ্বেগ দূর করে ঘুম আনতে সহায়তা করে। ত্বকের নানা সমস্যা দূর করতেও ক্যামোমিল কার্যকর। এছাড়াও ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে দারুন সহায়ক ক্যামেলিয়া চা

৬। তুলসি চা:
তুলসি পাতার একাধিক ঔষধি গুণ আর রোগ নিরাময়ের ক্ষমতা সম্পর্কে আমরা অনেকেই জানি। যুগ যুগ ধরেই ছোটোখাটো নানা রোগের ওষুধ হিসেবে তুলসি পাতার ব্যবহার হয়ে আসছে। তবে জানেন কি পেটের বাড়তি মেদ ঝটপট ঝরিয়ে ফেলতেও তুলসি পাতা অব্যর্থ টোটকা হিসেবে কাজ করে তুলসি চা।

About admin

Check Also

লিভারে চর্বি জমলে কী করবেন

অন্য কোনো রোগে যেমন-তেমন, লিভারে অসুখ হয়েছে মনে করলেই মনে নানা অজানা আশঙ্কা উঁকি-ঝুঁকি দেয়। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *