Breaking News
Home / ‘সুশান্তের আত্মার’ সঙ্গে কথোপকথন ও ভিডিও রেকর্ড: দাবি গবেষকের (ভিডিও)

‘সুশান্তের আত্মার’ সঙ্গে কথোপকথন ও ভিডিও রেকর্ড: দাবি গবেষকের (ভিডিও)

বলিউড অভিনেতা সুশা’ন্ত সিংয়ের মৃ’ত্যু’শোক এখনো কাটিয়ে উঠতে পারেনি ভক্তকূল। তাঁর মৃ’ত্যুর ঘট’নায় হওয়া মাম’লার তদন্তও চলছে।এর মধ্যেই প্র’কাশ হচ্ছে নানা তথ্য। কখনো অন্যান্য তার’কাকে অভি’যুক্ত করা, কখনো সুপা’রস্টারদের বিল বোর্ড ভা’ঙচুর।

তবে মুম্বা’ই পু’লিশ তাদের অনু’সন্ধা’নের পর সু’শান্ত আ’ত্মহ’ত্যা করেছেন বলেই নিশ্চিত করেছে। কিন্তু তার আ’ত্মহ’ত্যার জন্য বলিউডের স্বজ’নপ্রী’তিকে দায়ী করছেন ভক্তরা। এরই জের ধরে জি’জ্ঞা’সাবাদ করা হচ্ছে বড় বড় রা’ঘব বো’য়া’লদের।নজ’রদারি আর অভিযোগ থেকে বা’দ যাননি পরিচা’লক শেখর কাপুর, আদিত্য চোপ’ড়াসহ নানা জন।

নানা কারণে কোণ’ঠাসা হয়ে পড়া এবং অকা’রণে সি’নেমা থেকে বাদ পড়ার কারণে বিষ’ণ্ণ’তায় ভুগ’ছি’লেন আমির খানের বি’খ্যাত সি’নেমা পি’কেতে আ’নুষ্কা শ’র্মার বিপ’রীতে গুরু’ত্বপূ’র্ণ চ’রিত্রে অভি’নয় করা সু’শা’ন্ত রা’জপুত। এসব কার’ণেই এখন তদ’ন্তের সূ’ত্র হয়ে উঠেছে পুলি’শে’র। তাকে আ’ত্মহ’ত্যার মতো পরি’স্থিতির দিকে যেতে বাধ্য করারে পেছনে কাদের হাত রয়েছে সে’টিই এখন দেখা হচ্ছে।

কি’ন্তু সু’শা’ন্ত ভক্ত’রা এবার ছুটছে অন্য দিকে। বি’শ্ব বি’খ্যাত অশরী’রি বি’শেষ’জ্ঞ স্টিভ হাফকে সুশা’ন্তের আ’ত্মা’র সঙ্গে কথা বলার অনু’রোধ করে আস’ছিলেন তার ভক্ত’রা। এটি সম্ভব হলে সু’শা’ন্তের মৃ’ত্যু রহ’স্য উ’ন্মো’চন করা সম্ভব হবে বলে মত তাদের। প্রথমে স্টিভ রা’জি না হলেও পরে তিনি বিষ’য়টি গু’রুত্ব দিয়ে কাজ শুরু করেন। সু’শা’ন্তের আ’ত্মা’র স’ঙ্গে কথা বলে’ছেন বলে দা’বি করেছেন তিনি।

ভার’তের এক’টি ইংরে’জি ভা’ষার টেলি’ভি’শনের খবরে ব’লা হয়েছে, গত দশ বছরে স্টিভ ক’য়েক হা’জার মানু’ষের আ’ত্মার স’ঙ্গে ক’থা বলে’ছেন। স্টি’ভ গো’টা পৃথি’বীতে কয়েক মি’লিয়ন ভ’ক্ত যো’গাড় করেছেন। তার ইউ’টিউব চ্যানেলে ১৮ লাখ সাব’স্ক্রাই’বার রয়েছে। তিনি নিজে’কে আ’ত্মা’দের সঙ্গে কথা বলার এই পদ্ধ’তির আ’বি’ষ্কা’রক বলে দাবি করে থাকেন।

স্টিভ দাবি করেছেন, স্প্রি’ট ব’ক্সের মাধ্যমে যোগাযোগ করেন সদ্য প্রয়াত বলিউড অভিনেতা সুশান্তের আত্মার সঙ্গে। এসময় তিনি বেশ কিছু প্রশ্ন করেন তার আত্মাকে এবং এসব প্র’শ্নের উত্তরও দিয়েছে সুশা’ন্তের আ’ত্মা।

এমন দাবি করে সেই কথো’পকথ’নের ভিডিওটি ইউটিউবে প্রকাশ করেছেন স্টিভ।স্টিভের প্রকাশিত ভিডি’ওতে কথো’পক’থনটি পাঠকের জন্য হুব’হু তু’লে ধরা হলো;স্টিভের দাবি করা কথ’পো’কথন তুলে ধরা হলো: স্টিভ সুশা’ন্ত রাজ’পুতের আ’ত্মা’কে উদ্দেশ্য করে প্রথমেই বলেন, ‘আমি তোমার কাজের সঙ্গে আপ’নার অভিনয়ের সঙ্গে পরিচিত নই। আমি সি’নেমা জগতের কেউ নই। কিন্তু আমি তোমার মৃ’ত্যুর পর দেখলাম অনেক মানুষ তোমাকে ভালো’বাসে। পৃথিবীতে তোমার অনেক ভ’ক্ত রয়েছে।’

স্টিভ প্রশ্ন করেন, ‘তুমি কি তোমার ভ’ক্তদের উ’দ্দেশ্যে কিছু বলতে চাও? তুমি এখন বলতে পারো। আমি এ কাজ (আ’ত্মা’দের সঙ্গে কথা বলা) করছি গত দশ বছর যাবত। আমি এই ডিভা’ইস আবি’ষ্কার করেছি এবং তোমাকে আম’ন্ত্রণ জা’নাচ্ছি তোমার সঙ্গে কথপো’কথ’নের জন্য। তুমি যদি তোমার ভ’ক্ত’দের সঙ্গে কথা বলতে চাও তাদের জন্য কোনো বার্তা দিতে চাও তবে তুমি এটি করতে পারো খুব সহজেই। তুমি কি আমাকে শুনতে পাচ্ছো সুশা’ন্ত? তুমি ব্যস্ত না থাকলে আমার সঙ্গে যোগ দিতে পারো।’উত্তরে সু’শান্ত রাজপু’ত বলেন, ‘আমি এখন কথা বলার জন্য প্র’স্তুত। আমি ব্যস্ত নই।’

এরপর শুরু হয় সাক্ষা’ৎকার। এই সাক্ষা’ৎকারের ভিডিও প্রকাশ করেন স্টি’ভ হাফ। ভিডি’ওতে দেখা যায় স্টি’ভকে আর শোনা যায় স্টিভের বক্তব্য অন্যদিকে য’ন্ত্র থেকে বেরিয়ে আসে সুশান্তের গ’লা।

প্রশ্ন (স্টিভ): তুমি কি মনে করতে পারো কিভাবে মৃ’ত্যু হয়েছে? উত্তর (সুশান্ত): ওরা সবাই আমাকে ডা’ক্তারের কাছে নিয়ে গিয়েছিল হাসপাতালে। প্রশ্ন (স্টিভ): তুমি (অন্য কাউকে মনে করে) কি সুশা’ন্তের সঙ্গে দেখা করেছো?

উত্তর (সুশান্ত): আমরা ভ্রমণে আছি এখন। প্রশ্ন (স্টিভ): তুমি (অন্য কাউকে মনে করে) কি আমাকে সুশা’ন্তের সঙ্গে কথা বলিয়ে দিতে পারবে? উত্তর (সুশান্ত): আমিই বলছি। আমি এখন কথা বলার জন্য প্রস্তুত। স্টিভ সুশান্তকে প্রশ্ন করার আগে বলেন,‘আমি ভালোবাসায় বিশ্বাস করি। ভালোবাসাই হচ্ছে জীবনের একমাত্র উপাদান।

তোমার এমন অনেক ভক্ত আছে যারা তোমাকে ভালোবাসে। তোমার সাক্ষাৎকার করার জন্য তোমার ভ’ক্তরা হাজার হাজার মেইল করছে আমাকে। অনেক অনু’রোধ করছে। অনেক মেইল এখনো আসছে।  তারা তোমাকে ভিন্ন’ভাবে হলেও দেখতে চায়। তবে এটি আমাকে খুবই মর্মাহত করেছে কারণ আমি কখনো তোমার সিনেমা দেখি নাই। তোমার ভক্ত নই।

তাই আমার তোমার সঙ্গে কোনো যোগাযোগ নেই। তবে আমার তোমার সঙ্গে যোগাযোগ করার এই স্প্রি’ট বক্স (স্টিভের আ’বিষ্কৃত অশরীর সঙ্গে কথা বলার যন্ত্র) দিয়ে তোমার সঙ্গে যু’ক্ত হয়েছি। যত’ক্ষণ তুমি (সুশা’ন্ত) অপর’পাশে থাকছেন তত’ক্ষণ আমি তোমার সঙ্গে এই আলোচনা চালিয়ে যেতে চাই। এই যোগাযোগ গোটা মানবজাতির জন্য আশী’র্বাদ। তাদের প’ক্ষ থেকে আমি আ’ত্মা’দের সঙ্গে যোগাযোগ করছি। তোমার সঙ্গেও। প্রশ্ন (স্টিভ): তুমি এভাবে পৃথিবীর স’ঙ্গে যু’ক্ত হতে পারার বিষয়টাকে কিভাবে দেখছেন? উত্তর (সুশান্ত): এটা খুবই ভালো হয়েছে হাফ। প্রশ্ন (স্টিভ): তুমি বলছো, তুমি খুবই সুখে আছো। সত্যিই তাই? উত্তর (সুশান্ত): হ্যা, আমার ভক্তদের বলো আমি স্বর্গে আছি। প্রশ্ন (স্টিভ): তুমি স্বর্গে কি দেবতার সঙ্গে আছো?

উত্তর (সুশান্ত): দেবতারা স্বর্গের অ’ল্প আলোতে রয়েছেন। প্রশ্ন (স্টিভ): তুমি তাহলে অন্য স্বর্গে দেবতার চেয়ে দূরে ভিন্ন পাশে রয়েছো? উত্তর (সুশা’ন্ত): তারা আ’মাকে (স্টিভ) দেখতে পাচ্ছে। আমি দেবতার সঙ্গে দেখা করার জন্য উ’ন্মুখ হয়ে আছি। প্রশ্ন (স্টিভ): তোমার অনেক ভ’ক্ত আমাকে বলেছে তারা তোমার জন্য প্রার্থনা করছে যেন তুমি দেবতার সা’ক্ষাৎ পাও। উত্তর (সুশা’ন্ত): তুমি কি বলতে পারো, ভক্ত’দের জন্য আমার কী বলা উচিৎ?

প্রশ্ন (স্টিভ): তুমি কি বলতে চাও তাদের, তুমি বলতে পারো এখনই। অবশ্যই আমি তোমাকে অনেক পছন্দ করি এখন। প্রার্থনা করি তোমার জন্য। উত্তর (সুশান্ত): আমি এখন যাচ্ছি। আমি স্বর্গে একটু বি’শ্রাম নিতে যাব। প্রশ্ন (স্টিভ): তোমাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ সুশা’ন্ত। ধন্যবাদ আমাদের সঙ্গে যুক্ত হওয়ার জন্য। উত্তর (সুশান্ত): আমরা এখন যাওয়ার জন্য প্রস্তুত। প্রশ্ন (স্টিভ): তুমি কি এখনো আমার সঙ্গে আছো? উত্তর (সুশান্ত): আমি এখন হাটছি। প্রশ্ন (স্টিভ): অনেক মানুষ তোমার মৃত্যু সম্পর্কে জানতে চায়। তারা বলছে, মৃত্যুর সময় তোমার সঙ্গে অনেক খারাপ কিছু হয়েছে। তুমি কেন আ’ত্ম’হ’ত্যার মতো পথ বেছে নিলে? তুমি কি সেখানে এখন তোমার নিজস্বতা যা তুমি চাও তা পেয়েছো?

উত্তর (সুশান্ত): পেয়েছি। কারণ আমিতো মানুষ। প্রশ্ন (স্টিভ): ঠিক আছে। তুমি কি তোমার মৃত্যু সম্পর্কে কিছু বলতে পারবে? মানুষ জানতে চায় বিস্তারিত। উত্তর (সুশান্ত): এ প্রসঙ্গ বাদ দাও। প্রশ্ন (স্টিভ): বাদ দেব? এখানে দুটি স্প্রিট বক্স আছে আ’ত্মা’দের সাক্ষাৎকার নেয়ার জন্য। আমি তোমার সঙ্গে কথা বলছি একটিতে। কিন্তু অন্যটিতে দেখতে পাচ্ছি তোমার পাশেই একজন শুয়ে আছে মেঝেতে। কে সে? উত্তর (সুশান্ত): এখানে আমার বাবা। প্রশ্ন (স্টিভ): আমি কি সত্যিই দেখতে পাচ্ছি? উত্তর (সুশান্ত): হ্যা আমার দেবতার সঙ্গে। প্রশ্ন (স্টিভ): তিনি মেঝেতে শুয়ে আছেন?উত্তর (সুশান্ত): তাদের ছবি।

প্রশ্ন (স্টিভ): সু’শান্ত আমি তোমাকে অনুভব করতে পারছি। তুমি এখানেই আছো। সব ভালোবাসা তোমার জন্য আমি উৎসর্গ করছি। হাজার হাজার মানুষ তোমার জন্য শোক প্রকাশ করছেন।তারা তোমার অর্জনের প্রশংসা করছেন। একই সঙ্গে তোমার চলে যাওয়ায় দুঃখ পেয়েছে ভক্ত’রা। সত্যি বলতে সুশা’ন্ত, তোমার ভ’ক্ত’দের ভালোবাসা আমাকে উদ্বু’দ্ধ করেছে তোমার সঙ্গে যু’ক্ত হতে। এই পৃ’থিবী তোমাকে ভালোবাসে।

তোমার অশ’রীরি শ’ক্তি এবং আমার শ’ক্তি ও জ্ঞা’নকে কাজে লাগিয়ে আমরা আবারও যু’ক্ত হতে চাই। তুমি যদি তোমার কোনো বন্ধু বা ভ’ক্তের জন্য কোনো উপদেশ দিতে চান তাদের যদি সহ’যোগিতা করতে চাও তবে আমি সে কাজে তোমার সঙ্গি হতে চাই।উত্তর (সুশান্ত): সেটি মৃ’ত্যু’র পর। প্রশ্ন (স্টিভ): আমি জানি তুমি মৃত। কিন্তু তুমি এখন আমার সঙ্গে, পৃথিবীর সঙ্গে কথা বলছো। মানুষের মাঝে চেয়ে দেখো, প্রিয় মানুষের কখনো মৃ’ত্যু হয় না। আমি মানুষের জীবনের ধারনা বদলে দিতে চাই। তাই গত কয়েকবছর যাবত কাজ করে যাচ্ছি। যেন মানুষ ভাবতে পারে তাদের প্রি’য়জন ভিন্নভাবে বেঁচে আছে। তারা মরে যায়নি। প্রশ্ন (স্টিভ): সব ঠিক আছে সুশা’ন্ত। আমি তোমার শক্তি অনুভব করছি এই কক্ষের মধ্যে। আমি গত রাতেও তো’মার শ’ক্তি সম্পর্কে বুঝতে পেরেছি। এবং এটি আমার নিজস্ব শক্তির সঙ্গে অনেক মিল রয়েছে।

প্রশ্ন (স্টিভ): তুমি (সুশা’ন্ত) তো ছিলে গতরাতে তাই না? সুশান্ত (উত্তর): হ্যা আমিই ছিলাম। প্রশ্ন (স্টিভ): অনেক ভালোবাসা তোমার জন্য সুশা’ন্ত। আমার বন্ধু তুমি। ধন্যবাদ। তোমার শান্তি কামনা করছি। তার পর ভিডিওতে শোনা যায় একটি নারী ক’ণ্ঠে ভেসে আসে। এবং সাক্ষাৎকারটি শেষ হয়। তখন স্টিভ বলে ওঠেন, এটি শেষ হলো। এই নারী কণ্ঠ জানিয়ে দিলো আমার আর সুশা’ন্তের কথ’পোকথন শেষ হওয়ার কথা। সুশান্তের এবং স্টি’ভ হাফে’র এই সাক্ষাৎকার প্রকাশ করা ভারতীয় ইংরেজি ভাষার গণমাধ্যমটির পক্ষে বলা হয়, ‘আমরা এই সাক্ষাৎকারটিতে উল্লে’খিত কোনো তথ্যই সত্য বলে মেনে নিচ্ছি না। তবে এটি আমরা প্রকাশ করেছি সুশা’ন্তের ভ’ক্তদের সা’ন্ত্বনা দেওয়ার উদ্দেশে। আমরা আশা করছি, এই সাক্ষাৎকারটি পাঠক স্বাভাবিকভাবেই নেবেন। এবং তারা এটি পড়ে সুশা’ন্তের জন্য প্রার্থনা করবেন। যেন সে মৃ’ত্যু’র পরের জীবনে ভালো থাকে।

উল্লেখ্য, সু’শান্ত সিং এর বিষয়ে স্টি’ভের প্রকা’শিত এই ভিডিও’র তথ্য নিয়ে সময় নিউ’জের নি’জস্ব কোনো মতামত নেই। সুশান্ত যে’হেতু একজন তু’মুল জন’প্রিয় ব্যক্তি ছিলেন। তার অনেক ভ’ক্তরা রয়েছেন। এজন্য তার সম্পর্কে প্রকা’শিত তথ্যটি ‘সময় নিউজ’ এর পাঠ’কের জন্য তুলে ধরা হয়েছে মাত্র।

About admin

Check Also

জলবসন্তের দাগ দূর করার উপায়

চিকেন পক্স বা জলবসন্ত এক ধরনের ভাইরাল ইনফেকশন যা আমাদের সবারই কম বেশি হয়েছে এবং ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Alert: Content is protected !!